Main Menu

গাজীপুরে টায়ার কারখানায় বয়লার বিস্ফোরণে নিহত ৫

গাজীপুর প্রতিনিধি
গাজীপুর মহানগরের পূবাইল কলেজ গেট এলাকায় স্মার্ট মেটাল অ্যান্ড কেমিক্যাল নামে একটি টায়ার তৈরির কারখানায় বয়লার বিস্ফোরণ হয়ে শিক্ষিকাসহ ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া আরো ৮ জন দগ্ধ হয়েছে। এ পর্যন্ত একজন শিক্ষিকাসহ ৩ জন নিহতের নাম পরিচয় জানাগেছে। নিহত শিক্ষিকা সিদ্দিকা জেবুন নেসার । সে মহানগরের পূবাইল এলাকার দেলোয়ার হোসেনের স্ত্রী এবং স্থানীয় বারইবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করতেন। কারখানার শ্রমিক নিহত সেলিম। সে মহানগরের পূবাইলের বসুগাঁও এলাকার মৃত মান্নানের ছেলে,আব্দুর রাজ্জাক তার বাড়ি মাদারিপুর জেলায় বলে জানা গেছে। দগ্ধ কাদিও ও কামালকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। শনিবার বিকেল সাড়ে পৌনে ৪টার দিকে বিকট শব্দে বয়লারটি বিস্ফোরণ ঘটলে কারখানাটি পুড়ে যায়। ঘটনার পর থেকে জয়দেবপুর ও টঙ্গী ফায়ার সার্ভিসের ৬টি ইউনিট কর্মীরা আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করে রাত ৬ টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনেন।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে বিকট শব্দে কারখানার বয়লার বিস্ফোরণ ঘটে। সঙ্গে সঙ্গে কারখানাটিতে আগুন ধরে যায়। এসময় এক শিক্ষিকাসহ ৫ জন অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা যান। তারা আরো জানান, শিক্ষিকা সিদ্দিকা জেবুন নেসা কারখানাটি পাশ দিয়ে রিকশাযোগে যাওয়ার সময় আগুনে পুড়ে যান। বাকি চারজন এমনভাবে পুড়ে গেছে যে তাদের চেনা যাচ্ছে না বলে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা জানান। কারখানার ভেতরে ৩০ জন শ্রমিক কাজ করছিলেন বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন। তবে আশঙ্কা করা হচ্ছে কারখানার ভেতরে আরো লাশ পাওয়া যেতে পারে।
ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের জয়দেবপুর স্টেশনের উপ-সহকারী পরিচালক মো. আখতারুজ্জামান লিটন বলেন, অগ্নিকাণ্ডে পাঁচজনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। তবে ৮জন নিহত হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়লেও পাঁচজনের বিষয়ে আমরা নিশ্চিত হয়েছি। দগ্ধদের হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান আখতারুজ্জামান। ওই কারখানায় পুরনো টায়ার থেকে তার বের করা হয় বলে জানিয়েছেন দমকলকর্মীরা। বয়লার বিস্ফোরণের পর অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত টায়ার কারাখানাটি ছিল সম্পূর্ণ অনুমোদনহীন। অগ্নিকাণ্ডে কারখানার তেলের ড্রাম, মেশিনপত্র ও একটি লরি সম্পূর্ণ পুড়ে যায়। কারাখানার বয়লার বিস্ফোরণের কারণ জানা যায়নি। একইভাবে ক্ষয়-ক্ষতির পরিমাণ নির্ধারণ করা যায়নি। যে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে সেখানে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।
গাজীপুরের পুলিশ সুপার হারুন-অর রশীদ বলেন, ঘটনাস্থলে তিনজন মারা গেছেন। গুরুতর অবস্থায় কয়েকজনকে হাসপাতালে পাঠানো হয়।
তদন্ত কমিটি গঠন: গাজীপুরে একটি টায়ার তৈরির কারখানায় বয়লার বিস্ফোরণে সৃষ্ট আগুনে ৫ জনের মৃত্যুর ঘটনায় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. রাহেনুল ইসলামকে প্রধান করে ৩ সদস্যের কমিটি করা হয়েছে। এর আগে শনিবার বিকেল ৪টার দিকে হতাহতের খবর পেয়ে গাজীপুরের জেলা প্রশাসক এসএম আলম ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যান। পরে তিনি শহীদ তাজ উদ্দীন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রোগীদের দেখতে যান। সেখানে তিনি সাংবাদিকদের তদন্ত কমিটি গঠনের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি আরো জানান, নিহতদের দাফনের জন্য তাদের প্রত্যেক পরিবারকে ১০ হাজার টাকা অনুদান ঘোষণা করা হয়েছে।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published.