Main Menu

জোড়া খুনের ঘটনায় মামলা, সড়ক অবরোধ, আটক ৩

সিলেট সদর উপজেলার খাদিমনগরস্থ বিসিক শিল্প নগরীতে বনফুল ফ্যাক্টরির দুই শ্রমিক খুনের ঘটনায় মামলা হয়েছে। নগরীর শাহপরান থানায় দায়ের করা মামলায় অজ্ঞাত ৮-১০জনকে আসামী করেছেন মামলার বাদী নিহত রাজু মিয়ার ভাই মাসুদ পারভেজ। শাহপরান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
এই জোড়া খুনের ঘটনায় জিঞ্জাসাবাদের জন্য সন্দেহভাজন ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ। এদিকে খুনিদের গ্রেফতারের দাবীতে সিলেট-তামাবিল সড়ক অবরোধ করেছে শ্রমিকরা।
নিহত রাজু মিয়া (১৯) চাঁদপুর জেলার হাজীগঞ্জ দরদাহের হারুনুর রশীদের ছেলে এবং আবু মিয়া (২০) শরিয়তপুরের ধামড়া ধনই গ্রামের মৃত হাসু ডাক্তারের ছেলে বলে জানিয়েছে পুলিশ। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন সিলেটের দক্ষিণ সুরমার রাসেল আহমদ (২২)।
শাহপরান থানা পুলিশ জানায়, শুক্রবার সন্ধ্যায় হত্যাকান্ডের পর থেকে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে রাতেই ৩জনকে আটক করা হয়। তবে আটককৃতদের নাম প্রকাশ করেনি পুলিশ।
এদিকে এ হত্যাকান্ডের ঘটনায় বিক্ষোভ ছড়িয়ে পরেছে শ্রমিক সংগঠনগুলোতে। শনিবার সকাল সাড়ে দশটা থেকে খাদিম বিসিক শিল্পনগরীর সামনে সিলেট-তামাবিল সড়ক অবরোধ করে রেখেছে হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নসহ বিভিন্ন ফ্যাক্টরির শ্রমিকরা।
সিলেট হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারন সম্পাদক মো. সাদিক জানান, দ্রুত জড়িতদের গ্রেফতার না করা হলে শ্রমিকরা কঠোর আন্দোলনে নামতে বাধ্য হবেন।
প্রসঙ্গত, শুক্রবার রাত ৮টার দিকে সিলেটের খাদিমনগরস্থ বিসিক শিল্প নগরীর ভেতরে খাদ্যসামগ্রী প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান বনফুলের কর্মী রাজু মিয়া (১৯), আবু মিয়া (২৫) ও রাসেল আহমদকে (২২) কুপিয়ে ফেলে যায় দুর্বৃক্তরা। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাদের ওসমানী হাসাপাতালে নিয়ে গেলে কতর্ব্যরত চিকিৎসক রাজু ও আবুকে মৃত ঘোষণা করেন। গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন রাসেল (২১)।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published.