Main Menu

দিনের শুরুতেই পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১২

শীতের কুয়াশা ভেজা সকালে দেশের সড়কগুলো যেন মৃত্যুফাঁদ হয়ে উঠেছে। শনিবার সকালে চুয়াডাঙ্গা, পাবনা, হাটহাজারী, জয়পুরহাট ও বঙ্গবন্ধু সেতুর উপর পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১২ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ঘন কুয়াশার কারণে এসব দুর্ঘটনা ঘটেছে।

বঙ্গবন্ধু সেতুর উপর দুর্ঘটনায় নিহত ৬

শনিবার সকালে সাড়ে নয়টার দিকে বঙ্গবন্ধু সেতুর উপর একটি ট্রাকের পেছনে বাসের ধাক্কার পর ঘন কুয়াশায় আরো চারটি বাস পেছন থেকে ধাক্কা দিলে অন্তত ছয়জন নিহত হয়। আহত হয়েছেন অন্তত ১৫ জন। দুর্ঘটনা কবলিত গাড়িগুলো সেতুর উপর এলোমেলো অবস্থায় রয়েছে। সেখানে উদ্ধার কাজ চালাচ্ছে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা।

চুয়াডাঙ্গায় বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৩

জেলার দামুড়হুদা উপজেলায় যাত্রীবাহী দুটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুই বাসের চালকসহ তিনজন নিহত হয়েছে। এ সময় আরও চারজন আহত হয়েছেন।

উপজেলার জয়রামপুর কাঠালতলায় শনিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতের মধ্যে রয়েছেন দর্শনা ডিলাক্স পরিবহনের চালক দুলাল (৩৭) ও পূর্বাশা পরিবহনের চালক শান্তি (৩৫) ও বাসযাত্রী আরোজ আলী।

দামুড়হুদা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লিয়াকত হোসেন জানান, দুর্ঘটনায় ঘটনাস্থলেই দু’জন নিহত হন। এ ছাড়া আহত হয়েছেন আরও চারজন। নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি।

চট্টগ্রামে নিহত ১

চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার বড় দীঘিরপাড় এলাকায় বাস ও মটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে মো. রাশেদ (২৫) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। সকাল ১১টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে আহত হয়েছেন সালাউদ্দিন নামে আরও একজন।

হাটহাজারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ইসমাইল বলেন, মোটরসাইকেল ও বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুই মোটরসাইকেল আরোহি গুরুতর আহত হন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই পঙ্কজ বড়ুয়া জানান, ‘গুরুতর আহত অবস্থায় মেডিকেলে দু’জনকে আনার পর কর্তৃব্যরত চিকিৎসক একজনকে ‍মৃত ঘোষণা করেন।’ অপরজনের অবস্থাও আশঙ্কাজনক বলে জানান তিনি।

পাবনায় ট্রাকচাপায় নিহত অটোরিকশা যাত্রী

পাবনা সদর উপজেলার মনোহরপুর এলাকায় ট্রাকের চাপায় সুইট (২৪) নামে এক অটোরিকশা যাত্রী নিহত হয়েছেন। সে সময় আহত হয়েছেন আরো তিন যাত্রী। সকাল ৮টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত সুইট সদর উপজেলার ছোট মনোহরপুর গ্রামের আজমত আলীর ছেলে। আহতরা হলেন- একই উপজেলার রমজান (৬০), এলেকা (৫০) ও রুম্মন (৪৫)। তাদের গুরুতর অবস্থায় পাবনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল্লাহ আল হাসান জানান, সকালে সিএনজি চালিত অটোরিকশায় করে পাবনা শহরে আসছিলেন সুইট। এসময় ঈশ্বরদীগামী একটি ট্রাক ওই অটোরিকশাকে চাপা দেয়। এতে সুইটসহ অটোরিকশার চার যাত্রী আহত হন। এ অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে পাবনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক সুইটকে মৃত ঘোষণা করেন।

জয়পুরহাটে নিহত ১

জেলার আক্কেলপুর উপজেলায় মটরসাইকেল দুর্ঘটনায় বেলাল হোসেন (৪২) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন জহুরুল ইসলাম নামে অপর মটরসাইকেল আরোহী।

সকাল ৯টার দিকে আক্কেলপুর-জামালগঞ্জ সড়কের আওয়ালগাড়ী এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত মটরসাইকেল চালক বেলাল হোসেন জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলার দেওগ্রামের মৃত হবিজ উদ্দীনের ছেলে ও আহত আরোহী একই গ্রামের জহুরুল ইসলাম।

আহত জহুরুল ইসলাম জানান, সকালে মোটরসাইকেলে করে জিয়াপুর থেকে আক্কেলপুর বাজারের উদ্দেশে যাচ্ছিলেন তারা। পথিমধ্যে আওয়ালগাড়ী এলাকায় মটরসাইকেলটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি গাছের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। পরে স্থানীয়রা দুজনকেই আক্কেলপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে দায়িত্বরত চিকিৎসক বেলাল হোসেনকে মৃত ঘোষণা করেন।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published.