Main Menu

‘৮০ হাজার আশ্রয়প্রার্থীকে’ ভাড়া করা বিমানে তুলে বাইরে পাঠিয়ে দিবে সুইডেন

২০১৫ সালে ইউরোপের একক রাষ্ট্র হিসাবে সুইডেনেই সর্বোচ্চ সংখ্যক অভিবাসী আশ্রয়ের জন্য আবেদন করেন।আশ্রয়ের আবেদন প্রত্যাখ্যানের পর ৮০ হাজারের বেশি অভিবাসন প্রত্যাশীকে সুইডেন থেকে বহিষ্কার করা হতে পারে বলে জানিয়েছে দেশটির সরকার।

সুইডেনের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্ডার্স ইজম্যানকে উদ্ধৃত করে বিবিসির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, ভাড়া করা বিমানে তুলে এই আশ্রয়প্রার্থীদের বাইরে পাঠিয়ে দেয়া হতে পারে। এজন্য কয়েক বছর সময় লাগবে।

সুইডিশ গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, “আমার ৬০ হাজার আবেদনকারীর কথা বলছি। তবে সংখ্যাটি ৮০ হাজার ছাড়িয়ে যেতে পারে।”

২০১৫ সালে প্রায় ১ লাখ ৬৩ হাজার অভিবাসনপ্রত্যাশী সুইডেনে আশ্রয়ের আবেদন করেন। ইউরোপে একক রাষ্ট্র হিসাবে এই সংখ্যাই সর্বোচ্চ।

এই বিপুল সংখ্যক আবেদনের মধ্যে গেল বছর ৫৮ হাজার ৮ শ’ আবেদন যাচাই-বাছাই করা হয়। শেষ পর্যন্ত সরকারের অনুমোদন পায় ৫৫ শতাংশ আবেদন।

দেশটির অভিবাসন কর্মকর্তারা জানান, এই আবেদনকারীদের মধ্যে ৩৫ হাজার ৪শ’ অপ্রাপ্তবয়স্ক ছিল, যাদের সঙ্গে কোনো অভিভাবক ছিলেন না। ২০১৪ সালের তুলনায় এই সংখ্যা পাঁচগুণ বেশি।

আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার হিসাবে, গতবছর ১০ লাখ ৫ হাজার ৫০৪ জন শরণার্থী গ্রিস, বুলগেরিয়া, ইতালি, স্পেন, মাল্টা ও সাইপ্রাস হয়ে ইউরোপে প্রবেশ করেছেন। এদের মধ্যে ৮ লাখ ১৬ হাজার ৭৫২ জনই ইউরোপে পৌঁছেছেন সমুদ্র পাড়ি দিয়ে।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published.