Main Menu

আসছে ৫০ হাজার গুণ বেশি গতি সম্পন্ন ইন্টারনেট

ব্রডব্যান্ড কেবলের সংযোগে যে গতি পাওয়া যায় তার চেয়ে ৫০ গুণ বেশি গতির ব্রডব্যান্ড সংযোগ আবিষ্কার করেছে ব্রিটিশ গবেষকরা।

ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডনের বিজ্ঞানীরা নতুন একটি ফাইবার অপটিক উপকরণ তৈরি করেছে যা দিয়ে প্রতি সেকেন্ডে ১.১২৫ টেরাবাইট গতিতে ডাটা প্রেরণ করা সম্ভব।

সারা পৃথিবীতে রেকর্ড করা এই গতি দিয়ে হাই ডেফিনেশনের যেকোনো টিভি সিরিজ প্রেরণ করা যাবে মুহূর্তেই।

এই গবেষণা দলের প্রধান গবেষক ড. রবার্ট মাহের বলেন,‘এই সংযোগের গতি যুক্তরাজ্যে প্রদত্ত ইন্টারনেটের গতি যা প্রতি সেকেন্ডে ২৪ মেগাবাইট তার চেয়ে ৫০ হাজার গুণ বেশি গতি সম্পন্ন’।

তিনি আরও বলেন, ‘বর্তমানের গতিকে বলা হচ্ছে ‘সুপারফাস্ট’ ব্রডব্যান্ড। থ্রোনের মতো ভারী কম্পিউটার গেম ডাউনলোড করতে সময় লাগবে মাত্র ১ সেকেন্ড। যেখানে বর্তমান ব্রডব্যান্ডে গেইমটি নামাতে সময় লাগে কয়েক ঘণ্টা।’

গবেষকরা নতুন এই ব্রডব্যান্ডের নাম দিয়েছেন ‘সুপার চ্যানেল’ প্রযুক্তি। এই প্রযুক্তি ব্রডব্যান্ডে যুগান্তকারী পরিবর্তন আনবে এবং ‘পরবর্তী প্রজন্মের উচ্চ গতির যোগাযোগ ব্যবস্থা সৃষ্টি করবে।

নতুন এই সংযোগটি আলোক তরঙ্গের মাধ্যমে তথ্য আদান প্রদান করবে। ১৫টি স্পন্দনের আলোর বিভিন্ন কম্পাঙ্কের একটি সুপার চ্যানেলের মাধ্যমে আলো ছড়িয়ে দেয়া হবে। হাজার মাইল দূরে অবস্থিত বিশেষ এক ধরনের গ্রাহকযন্ত্র ব্যবহার করে সেই সংকেত ধরা এবং প্রক্রিয়াজাত করা হবে।

সুপার চ্যানেল মূলত ব্যবহৃত হচ্ছে তারহীন সিগন্যালে। এখনও পর্যন্ত স্থায়ী সংযোগে এই প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়নি। বাণিজ্যিকভাবে এই সংযোগ এখনও প্রদান করা শুরু হয়নি। গবেষকরা হাজার মাইলের তার সংযোগে এই গতি দেয়ার জন্য পরীক্ষা নিরীক্ষা চালিয়ে যাচ্ছে।






Related News

Comments are Closed