Main Menu

দ্য মোস্ট বিউটিফুল গার্ল ইন দ্য ওয়ার্ল্ড

৪ লাখ ফেসবুক ফ্যান, ১২ লাখ ইনস্টাগ্রাম ফলোয়ার। এত্ত ফ্যানের পরিসংখ্যান কোনও সেলিব্রেটির নয়। দশ বছরের একটি ছোট্ট মেয়ে হারশালি মালোত্রা, যাকে নিয়ে এই মুহুর্তে তোলপাড় ফ্যাশন দুনিয়া। তবে মূল খবর এটা নয়। ফ্যাশন দুনিয়ার যে খবর চমকে দিয়েছে সকলকে তা হলো এই পিচ্চি মেয়ের পকেটে এখন বিশ্বের অন্যতম বিখ্যাত মডেল এজেন্সি ‘এল এ মডেলস’ এর কন্ট্র্যাক্ট। আর এই কন্ট্র্যাক্টে ছোট্ট ‘সগপার মডেল’-এর গায়ে থাকবে ‘দ্য মোস্ট বিউটিফুল গার্ল ইন দ্য ওয়ার্ল্ড’-এর খেতাব।

প্রাক্তন রুশ ফুটবলার রুশলান পিমেনভের মেয়ে ক্রিস্টিনা পিমেনভের কাছে মডেলিং কোনও নতুন বিষয় নয়। তিন বছর বয়স থেকেই শুরু হয়েছে তার ‘ক্যাট ওয়াক’। ইতিমধ্যেই ক্রিস্টিনা জায়গা করে নিয়েছে ‘ভোগ’-আর কভার পেজে। এইটুকু বয়সেই খ্যাতির অনেকটা শিখরে পৌঁছে গেছে ক্রিস্টিনা। কিন্তু খ্যাতি থাকলেই থাকবে সমালোচনা। ছোট বলে তার থেকে বাদ পড়েনি সে। অনেকেই মনে করছেন এইটুকু বাচ্চাকে যে ধরণের উত্তেজক পোষাক পরানো হয় বা যেভাবে দেখানো হয় তার ‘সেক্সি লেগ’ তা সৌন্দর্যের থেকে সেস্কুয়ালিটিকেই বেশি তুলে ধরে। এর জন্য অবশ্য সমালোচকরা দায়ী করছেন ক্রিস্টিনের ম্যানেজার অর্থাৎ তার মাকে।

তাদের মতে প্রচার ও টাকা পয়সার জন্য ছোট্ট ক্রিস্টিনার সৌন্দর্যকে অন্যভাবে ব্যবহার করছেন ওর বাবা-মা। একথা অস্বীকার করে ক্রিস্টিনার মা, প্রাক্তন মডেল গিলকেরিয়া বলেছেন, ‘এইটুকু বাচ্চার খোলা পা দেখে যারা সেস্কুয়ালিটি কুঁজে পান তারা বিকৃত মনের মানুষ ছাড়া আর কিছু নয়’।

সূত্র: কলকাতা।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published.