Main Menu

আরও পাঁচ দিনের রিমান্ডে মাহফুজা

রাজধানীর রামপুরার বনশ্রীতে দুই সন্তানকে হত্যার ঘটনায় দায়ের করা মামালায় তাদের মা মাহফুজা মালেক জেসমিনের আরও পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

ঢাকার অতিরিক্ত মহানগর হাকিম আলমগীর কবির আজ বুধবার এ আদেশ দেন।

মাহফুজা মালেককে পাঁচ দিনের রিমান্ড শেষে আজ বুধবার আদালতে হাজির করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) পরিদর্শক লোকমান হেকিম। তিনি তাঁকে ১০ দিনের রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেন। রিমান্ড আবেদনে বলা হয়েছে, জোড়া খুনের হত্যা রহস্য উন্মোচনের জন্য আসামিকে নিবিড়ভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করা প্রয়োজন।

আসামির আইনজীবী আদালতে রিমান্ড বাতিল চান এবং জামিনের আবেদন করেন। অপরদিকে, রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী রিমান্ড আবেদন মঞ্জুরের পক্ষে যুক্তি তুলে ধরেন। মাহফুজা খালেক মানসিকভাবে অসুস্থ রয়েছেন—এমন দাবি করে তাঁর সুচিকিৎসা দেওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় আদেশ চান তাঁর আইনজীবী। কিন্তু রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী বিচারককে বলেন, এই আসামি সম্পূর্ণ সুস্থ।

দুই পক্ষের বক্তব্য শোনার পর আদালত মাহফুজা খালেককে বিভিন্ন প্রশ্ন করেন। বিশেষ করে তাঁর ছেলে ও মেয়ে কোথায় পড়াশোনা করত, তাঁর বাড়ি কোথায়, রিমান্ডে তাঁকে কোনো নির্যাতন করা হয়েছে কিনা, রিমান্ড আবেদনের ওপর কোনো কথা বলবেন কিনা—এ রকম বিভিন্ন প্রশ্ন করেন। প্রশ্নের জবাবে মাহফুজা খালেক আদালতে বলেন, ‘আমার ওপর চাপ প্রয়োগ করা হয়েছে।’ তিনি বিচারকের অন্যান্য প্রশ্নের উত্তর দেন।

শুনানি চলাকালে বিচারক বলেন, ‘কোনো ছেলেমেয়েকে লেখাপড়ার জন্য অতিরিক্ত চাপ দেওয়া উচিত নয়। বিশেষ করে শিশুদের লেখাপড়া নিয়ে মায়েদের বাড়াবাড়ি করাও ঠিক নয়।’

উল্লেখ্য, বনশ্রীর ৪ নম্বর রোডের ৯ নম্বর বাসায় গত ২৯ ফেব্রুয়ারি রাতে দুই শিশু নুসরাত আমান (১২) ও আলভী আমানের (৬) রহস্যজনক মৃত্যু হয়। ঘটনার পর স্বজনরা দাবি করেন, রেস্তোরাঁর খাবার খেয়ে দুই শিশুর মৃত্যু হয়েছে। পরে ময়নাতদন্তের পর চিকিৎসকেরা জানান, শিশু দুটিকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় তাদের মাকে আসামি করে বাবা আমান উল্লাহ থানায় মামলা করেন।






Related News

Comments are Closed