Main Menu

গাজীপুরে ভাড়াটিয়া সেজে ফ্ল্যাট বাসায় ডাকাতি

গাজীপুর প্রতিনিধি
গাজীপুর বাসা ভাড়া নেয়ার কথা বলে একটি বাড়িতে ডাকাতি সংগঠিত হয়েছে। ডাকাতরা বাসার নিরাপত্তা রক্ষী ও গৃহকর্তীকে বেঁধে নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার, ল্যাপটপ, মোবাইল সেট ও দামি কাপড় চোপড় লুট করে নিয়ে গেছে। সোমবার সন্ধ্যায় মহানগরের বরুদা এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে।
বাড়ির মালিক ডা. শামসুল আলম বুলবুলের স্ত্রী গৃহকর্তী কাজী রোকশানা পারভীন জানান, বাসা ভাড়া নেয়ার কথা বলে এক ব্যক্তি কয়েকদিন আগে বাসা দেখতে আসে।
সোমবার সন্ধ্যায় ওই ব্যক্তি বাসা ভাড়ার অগ্রীম টাকা দিতে আসে। এসময় ওই ব্যক্তি মোবাইল ফোনে কারো সাথে কথা বলে। কিছুক্ষণের মধ্যে ৭-৮ জন লোক ছয় তলা বাড়ির তৃতীয় তলায় তার ফ্ল্যাটে প্রবেশ করে। এক পর্যায়ে কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই ডাকাতরা পিস্তল ও চাপাতি নিয়ে তাকে ভয় দেখিয়ে হাত ও মুখ বেধে ফেলে। ডাকাতরা তার ঘরের আলমারি, ওয়্যারড্রপ, বিছানাপত্র তছনছ করে। ডাকাতরা আলমারীর ভিতর থেকে নগদ পাঁচ হাজার টাকা নিজের ও বোনের প্রায় ৪০ ভরি স্বর্ণালংকার, একটি ল্যাপটপ, মোবাইল সেট ও মূল্যবান শাড়ি কাপড় চোপর নিয়ে যায়। এসময় তারা ড্রেসিং টেবিলসহ বিভিন্ন আসবাবপত্র ভাঙচুর করে।

তিনি আরো জানান, ডাকাতরা চলে যাওয়ার পর তিনি কৌশলে তার বাধন খুলে চিৎকার করে নীচে নেমে দেখেন বাড়ির নিরাত্তা রক্ষী আব্দুর রহমান (৬৫) হাত-পা ও মুখ বাধা অবস্থায় গাড়ির গ্যারেজের এক কোনে পড়ে আছে। ৬তলা বাড়ির তিন তলায় ডা. শামসুল আলম বুলবুল তার স্ত্রী ও সন্তান থাকেন। এসময় বাসায় অন্য কেউ ছিলেন না বলেও জানান তিনি।

এ ব্যাপারে জয়দেবপুর থানার ওসি খন্দকার রেজাউল হাসান রেজা জানান, ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। এঘটনায় মঙ্গলবার রির্পোট লেখা পযর্ন্ত মামলা হয়নি।






Related News

Comments are Closed