Main Menu

দুই শিশু হত্যায় মা মাহফুজা ৫ দিনের রিমান্ডে

রাজধানীর রামপুরায় দুই শিশু হত্যার ঘটনায় তাদের মা মাহফুজা মালেককে ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

শুক্রবার রিমান্ড আবেদনের ওপর শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম স্নিগ্ধা রানী চক্রবর্তী তার রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে শুক্রবার দুপুরে মাহফুজা মালেককে আদালতে হাজির করে মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে ও ঘটনার মূল রহস্য উদঘাটনের জন্য রামপুরা থানার পরিদর্শক (অপারেশন) মোস্তাফিজুর রহমান রিমান্ডের আবেদন করেন।

মাহফুজার স্বামী আমান উল্লাহ বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার রাতে যে হত্যা মামলা করেছেন, সেই মামলায় তার রিমান্ড চাওয়া হয় ।

এদিকে গতকাল বৃহস্পতিবার র‌্যাবের পক্ষ থেকে বলা হয়, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মাহফুজা নিজেই তার সন্তানদের শ্বাসরোধে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন।

গত ২৯ ফেব্রুয়ারি রাতে বনশ্রীর ৪ নম্বর রোডের ৯ নম্বর বাসায় দুই ভাইবোনের রহস্যজনক মৃত্যু হয়। ঘটনার পর তাদের মা দাবি করেন, রেস্তোরাঁর খাবার খেয়ে দুই শিশুর মৃত্যু হয়েছে।

ময়নাতদন্তের পর চিকিৎসকেরা জানান, শিশু দুটিকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। এরপর লাশ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেখে তাদের বাবা-মা জামালপুর শহরের ইকবালপুরে শিশু দুটির নানাবাড়িতে চলে যান। মঙ্গলবার লাশের ময়নাতদন্তে দুই শিশুকে শ্বাসরোধে হত্যার আলামত পান চিকিৎসকরা।

নুসরাত আমান (১২) ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের (প্রধান শাখা) পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ত। হলি ক্রিসেন্ট (ইন্টারন্যাশনাল) স্কুল অ্যান্ড কলেজের নার্সারিতে পড়ত আলভী আমান (৬)।

দুই শিশু নুসরাত ও আলভীর লাশ মঙ্গলবার রাতে তাদের গ্রামের বাড়ি জামালপুরে দাফন করা হয়েছে। তাদের মা-বাবা আগেই সেখানে চলে যান। দুই সন্তানের মরদেহ মর্গে রেখে মা-বাবার গ্রামের বাড়িতে চলে যাওয়ায় এবং মামলা না করায় এ ঘটনা নিয়ে রহস্য ঘনীভূত হয়।

এর আগে মঙ্গলবার ওই দুই শিশুর গৃহশিক্ষিকা শিউলি, নিহতের আত্মীয় ওবায়দুর ও শাহিন এবং দারোয়ান পিন্টু মণ্ডল ও ফেরদৌসকে র‌্যাব-৩ কার্যালয়ে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।






Related News

Comments are Closed