Main Menu

ফ্রান্সের পিঙ্ক সিটি খ্যাত তুলুজে ইষ্টার সানডে পালন

আবু তাহির, তুলুজ থেকে: মানুষের সুখ,শান্তি ও কল্যাণ কামনায় নানা আয়োজনে খৃষ্টীয় ধর্মাবলম্বীদের ধর্মীয় উৎসব ‘ইষ্টার সানডে’ ফ্রান্সের অদূরে পিঙ্ক সিটি খ্যাত তুলুজের রাজাস্তান ভিলা রেস্টুরেন্টে বিশাল আয়োজনে পালিত হয়েছে।
ইষ্টার সানডে উপলক্ষে রোববার (২৭ মার্চ) সকালে কবরস্থানে বিশেষ প্রার্থনার (‘সানডে সানরাইজ প্রার্থনার’) মধ্য দিয়ে দিবসের সূচনা হয়। সেখান থেকে ফিরে গীর্জা ও চার্চে গিয়ে সকাল সাড়ে ৮টা থেকে সকাল ১০টা পর্যন্ত ‘ইষ্টার সানডের গুরুত্ব ও তাৎপর্য’ র্শীষক আলোচনা সভা ও সমবেত প্রার্থনা অনুষ্ঠিত হয়। দুুপুরে খৃষ্টীয় ধর্মাবলম্বী ছাড়াও অন্যান্য ধর্মের বন্ধু বান্ধব ও সুধি জনদের সাথে নিয়ে বিশেষ ভোজ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
বাংলাদেশী প্রবাসী খ্রীস্টান সোসাইটি তুলুজের আয়োজনে মার্ক রায় ও জেইন লিনেট বিগেল এর যৌথ উপস্থাপনায় সভাপতিত্ব করেন ডমেনিক জোসেফ কস্তা’র সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন লরেন্স গমেজ, ক্যান্টন কস্তা, নিকোলাস পিউরিফিকেশন, মার্ক রায়। এসময় বাইবেল পাঠ করেন শিলা কস্তা এবং স্টারের শুভেচ্ছা প্রদান করেন শীতল রোজারিও, হিলারি মিনস, প্রণতি ক্রুশ, মার্টিন ডায়েস, মার্ক কস্তা, রিচার্ড কিসকু। পরে সন্চয় কস্তা ও তুষার কস্তার পরিচালনায় এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।
এসময় বক্তারা বলেন যীশু মৃত্যু বরণ করে আবার তিনি পুনরুত্থান হয়েছেন। যিশু পুনরুর্থিত হয়ে মৃত্যুঞ্জয়ী হয়েছেন সূর্যের মত স্নিগ্ধ জ্যোতির্ময়তায়। তিনি পুনরূত্থান করে অন্ধকার পৃথিবীকে নব আলোয় আলোকিত করেছেন। মানুষকে সন্ধান দিয়েছেন নতুন জীবনের। এই বিশ্বাসকে বুকে ধারণ করে খৃষ্টীয় ধর্মাবলম্বিরা প্রতি বছরের এই দিনে পালন করেনে ইষ্টার সানডে। আগামীতে আরো বড় আয়োজনে এ দিনটিকে পালন করবেন বলেন বক্তারা আশাবাদ ব্যক্ত করেন।






Related News

Comments are Closed