Main Menu

শাহবাগে নার্সদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ

সরকারি কর্মকমিশন প্রকাশিত সিনিয়র স্টাফ নার্স নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি বাতিল করে আগের মতো ব্যাচ, মেধা ও জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে পদটিতে নিয়োগের জন্য আবারো বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের দাবিতে আন্দোলনে নেমেছে বাংলাদেশ বেসিক গ্রাজুয়েট নার্সেস সোসাইটি এবং বাংলাদেশ ডিপ্লোমা বেকার নার্সেস অ্যাসোসিয়েশন।

আজ বুধবার (২৯ মার্চ) সকাল থেকে শাহবাগ মোড়ে অবস্থান নিয়েছে। তারা সকাল থেকে শাহবাগে জড়ো হয়ে শাহবাগ চত্বর অবরোধ করে রাখে। দুপুরের দিকে পুলিশ ১৫ মিনিটের আল্টিমেটাম দেয় অবরোধ সরানোর। কিন্তু ১৫ নার্সদের সংগঠনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে তাদের দাবির বিষয়ে সুনির্দিষ্ট আশ্বাস না পেয়ে শাহবাগ অবস্থান ছেড়ে কেউ যাবে না। আল্টিমেটামের পরেই শুরু হয় সংঘর্ষ।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত (১টা ৩৫ মিনিট) পুলিশ তিনজনকে আটক করেছে। আন্দোলনকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে ছোড়া হয়েছে সাউন্ড গ্রেনেড। সংঘর্ষ চলছে।

সংগঠন দুটি দাবি করছে, গত ২৮ মার্চ সরকারের কর্মকমিশন সচিবালয় থেকে ৩ হাজার ৬১৬ জন সিনিয়র স্টাফ নার্সের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। তাতে জেষ্ঠতা লঙ্ঘন করা হয়েছে। এ কারণে হাজার হাজার বেকার নার্স চাকরির আবেদন করতে পারবে না। তাই প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তিটি সংশোধন করে জৈষ্ঠতার ভিত্তিতে পদটি নিয়োগ দেয়ার জন্য দাবি করছেন তারা।

এদিকে নার্সদের শাহবাগ মোড়ে অবরোধ কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে ওই এলাকা দিয়ে যানচলা বন্ধ হয়ে গেছে। এছাড়া আশপাশের সড়কগুলোতে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

এ সম্পর্কে বাংলাদেশ ডিপ্লোমা বেকার নার্সেস অ্যাসোসিয়েশন মহাসচিব ফারুক হোসেন বলেন, নার্সদের দাবীর বিষয়ে সুনির্দিষ্ট আশ্বাস না পেলে শাহবাগ ছাড়বে না নার্সরা।

অবরোধ কর্মসূচির আশে পুলিশের জলকামানসহ অন্যান্য সমঞ্জামাদি নিয়ে উপস্থিত হতে দেখা গেছে।






Related News

Comments are Closed