Main Menu

সিলেট সদর উপজেলায় ইউনিয়ন নির্বাচনে নির্বাচিত হয়েছেন যারা

সিলেট সদর উপজেলার কান্দিগাঁও ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী নিজাম উদ্দিন পুণঃনির্বাচিত হয়েছেন। মঙ্গলবার রাত ৮ টায় স্থানীয় সূত্রে পাওয়া খবরে এ তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে।
জামায়াত সমর্থিত প্রার্থী আবদুল মনাফকে পরাজিত করে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন নিজাম।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কান্দিগাও ইউনিয়নের সবকটি কেন্দ্রে নিজাম উদ্দিন পেয়েছেন ৭ হাজার ৭৯৫ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি জামায়াত সমর্থিত প্রার্থী আবদুল মনাফ আনারস প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ৪ হাজার ৫৭৫ টি। ওই ইউনিয়নে বিএনপির প্রার্থী ছিলেন আহমদ আলী।

সিলেট সদর উপজেলার জালালাবাদ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রায় ৬০০ ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মো. মনফর আলী। বিএনপি মনোনীত প্রার্থী ইসলাম উদ্দিনকে পরাজিত করে বেসরকারীভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থীকে চ্যালেঞ্জ করে ভোটযুদ্ধে অংশ নেয়া এ প্রার্থী।

সিলেট সদর উপজেলার ৭নং মোগলগাঁও ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী হিরণ মিয়া চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।
এ ইউপিতে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচনে মোট ৯টি কেন্দ্রে নৌকা প্রতীক নিয়ে হিরণ মিয়া পেয়েছেন ৫ হাজার ৯২৯ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি ছিলেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান সামসুল ইসলাম টুনু আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ৫ হাজার ৪০২। ফলে ৫২৭ ভোটের ব্যবধানে জয়ী হন হিরণ।

সিলেট সদর উপজেলার হাটখোলা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিপুল ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হয়েছেন বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আজির উদ্দিন। আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী খুর্শিদ আলমকে পরাজিত করে বেসরকারীভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন তিনি। হাটখোলা ইউনিয়নের সবকটি কেন্দ্রের ফলাফল পাওয়া গেছে। প্রাপ্ত ফলাফলে বিএনপির আজির উদ্দিন ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৪ হাজার ২৫৫ ভোট। ভোট কেন্দ্র দখল, সংঘাত সত্ত্বেও সিলেট সদর উপজেলার ৬নং টুকের বাজার ইউনিয়নে বিজয়ী হয়েছেন বিএনপির প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান শহীদ আহমদ। এই ইউনিয়নে একটি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ স্থগিত থাকলেও বাকী কেন্দ্রগুলোর ফলাফলে বড় ব্যবধানে এগিয়ে থাকায় বিজয়ী হন শহীদ।
মঙ্গলবার দুপুরে নির্বাচন চলাকালে টুকের বাজার ইউনিয়নের একটি কেন্দ্রে হামলা ও দখলের অভিযোগ ওঠে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীর সমর্থকের বিরুদ্ধে। সংঘাতের পর এই কেন্দ্র্রের ভোট বাতিল করা হয়।
রাতে পাওয়া ফলাফলে এ ইউনিয়নের ১৪টি কেন্দ্রের মধ্যে ১৩টি কেন্দ্রে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে শহীদ আহমদ পেয়েছেন ১৩০৯৫টি ভোট।
তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আলতাফ হোসেন নৌকা প্রতীক নিয়ে ১৩টি কেন্দ্রের ফলাফলে পেয়েছেন ৭০৩২টি ভোট।
এই ইউনিয়নের আখালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রটির ভোট বাতিল করা হয়েছে।

সিলেট সদর উপজেলার খাদিমপাড়া ইউনিয়নের ১৭ টি কেন্দ্রের ভোট গণনা সম্পন্ন হয়েছে। খাদিমপাড়া ইউনিয়নের বেশিরভাগ কেন্দ্রে বিশাল ব্যবধানে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রাথী অ্যাডভোকেট আফসর।

সিলেট সদর উপজেলার টুকেরবাজার ইউনিয়নে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন বিএনপি মনোনীত প্রার্থী শহীদ আহমদ। প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী আওয়ামী লীগের আলতাফ হোসেনকে বিপুল ভোটের ব্যবধানে হারিয়ে তিনি বিজয়ের হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন।

ইউনিয়নের ১৪ ভোটকেন্দ্রের মধ্যে ১৩টির প্রাপ্ত ফলাফলে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে শহীদ আহমদ পেয়েছেন ১৩ হাজার ৯৫ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আলতাফ হোসেন নৌকা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৭ হাজার ৩২ ভোট।






Related News

Comments are Closed