Main Menu

কাশিমপুর কারাগারের রক্ষী গুলিতে নিহত

গাজীপুরের কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনে অবসরপ্রাপ্ত এক কারারক্ষী দুর্বৃত্তের গুলিতে নিহত হয়েছেন।

সোমবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগারের প্রধান ফটক থেকে কিছু দূরে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত কারারক্ষীর নাম মো. রুস্তম আলী (৬০)। তিনি পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া থানার চড়কগাছিয়া গ্রামের আ. মান্নানের ছেলে। তিনি কাশিমপুর মহিলা কারাগারের কারারক্ষী ছিলেন এবং গত ৪ নভেম্বর অবসরে (এলপিআর) যান বলে জানা গেছে।

কাশিমপুর কারাগার-২-এর জেলার নাশির আহমেদ জানান, কারারক্ষী রুস্তম আলী কারাগারের প্রধান ফটক থেকে আনুমানিক ২৫০ গজ দূরে আহমদ মেডিসিন কর্নার নামের একটি ওষুধের দোকানে বসে ছিলেন। এমন সময় তাকে গুলি করে তিন দুর্বৃত্ত একটি মোটরসাইকেলে করে পালিয়ে যায়।

দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে রুস্তম আলীকে গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আনলে ডাক্তার রঞ্জিত কুমার পাল তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওই হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার আবদুস সালাম সরকার জানান, তাকে মৃত অবস্থায় আনা হয়েছে। নিহতের বুকে, হাতে এবং গালে ক্ষতচিহ্ন রয়েছে। ময়নাতদন্তের পর তার মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে।

নিহতের স্ত্রী নাসরিন আক্তার জানান, তারা কারাগারের কোয়ার্টারে বসবাস করে। সোমবার সকাল ৯টার দিকে তিনি বাজার করার উদ্দেশে বাড়ি থেকে বের হন। পরে বাজার করে বাড়িতে আসেন। আবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে রেশনের চাল বিক্রি করতে বের হয়ে যান।

নিহতের ছোট ভাই শাহ্ আলম জানান, ওই দোকানে বসে থাকা অবস্থায় অন্তত চার রাউন্ড গুলি করে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে আনা হয়। তিনি আরো জানান, রুস্তম আলীর মাস্টার্সে পড়–য়া নাহিদা আক্তার নামে একটি মেয়ে রয়েছে।






Related News

Comments are Closed