Main Menu

জাজ-এর ব্যানারে জয়া আহসান?

সরকারি অনুদানের সিনেমা ‘বিউটিসার্কাস’-এ অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন জয়া আহসান। মাহমুদ দিদার পরিচালিত নারী কেন্দ্রীক সিনেমাটি প্রযোজনায় এরমধ্যেই আগ্রহ প্রকাশ করেছে জাজ মাল্টিমিডিয়া। সেক্ষেত্রে বাণিজ্যিক এই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে এই প্রথম কাজ করবেন জয়া।

সম্প্রতি জাজ মাল্টিমিডিয়ার সঙ্গে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরষ্কারজয়ী এই অভিনেত্রীর একটি বৈঠকের পর এমন গুঞ্জনই ছড়িয়ে পড়ে ঢাকাই সিনেপাড়ায়।

এ ব্যাপারে র্নিমাতা মাহমুদ দিদার বলেন, “জাজ মাল্টিমিডিয়ার সাথে আমাদের একটা মিটিংয়ে প্রাথমিক আলোচনা হয়েছে। দুই পক্ষের মধ্যে আরো কিছু বিষয় আছে যেগুলো চূড়ান্ত হলেই কেবল আমরা গনমাধ্যমকে আনুষ্ঠানিকভাবে জানাবো। আগামী সপ্তাহে আমরা আবারো মিটিংয়ে বসবো।”

দিদার আরও জানান, ‘বিউটিসার্কাস’ হতে যাচ্ছে একটি নারীকেন্দ্রীক সিনেমা।

“এটা একটা ম্যাজিক্যাল সিনেসারপ্লট, যেখানে একজন নারী একটি সার্কাস দলকে নেতৃত্ব দেয়। কিন্তু একজন নারী একটি সার্কাসকে নেতৃত্ব দিচ্ছে এবং খেলা দেখাচ্ছে- এর বিরূদ্ধে দাঁড়িয়ে যায় একটি অপশক্তি। তারা এটাকে নিলামেতোলে। তারা এই সার্কাসকে পুড়িয়ে দিতে চায়। তারা একে অগ্রহনযোগ্য ঘোষণা করে। নারী নেতৃত্বের একটা বিশাল সমাবেশকে একটা বিপক্ষ শক্তি চলতে দেবেনা-এমন ভাবেই এগিয়ে গেছে সিনেমারগল্প।”

সিনেমায় নিজের অন্তর্ভুক্তির বিষয়টি নিশ্চিত করেন জয়া নিজেও। বলেন, “বিউটি সার্কাস’ সিনেমায় আমি বিউটি নাম ভূমিকায় অভিনয় করছি। কিন্তু সিনেমার দৃশ্যধারনের কাজটি কবে নাগাদ শুরু হচ্ছে তা এখনই সঠিকভাবে বলতে পারছি না। সিনেমার জন্য আমার সিডিউল নেয়া ছিলো কিন্তু পরবর্তীতে সিডিউল আবার একটু অদল বদল হয়েছে। তবে সিনেমায় আমি কাজ করছি এটা নিশ্চিত।”

সিনেমার গল্পের জন্য মোশাররফ করিম র্নিমাতার প্রথম পছন্দ থাকলেও নায়কের নাম এখনও চূড়ান্ত হয়নি। সিনেমার নায়ক র্নিবাচনের ক্ষেত্রে জাজ-এর অন্য সব সিনেমার মতোই টালিগঞ্জ র্নিভর হবেন কি না সেব্যাপারে নিজের অবস্থান পরিস্কার করলেন দিদার।

“আমি ব্যক্তিগত ভাবে এই প্রক্রিয়ায় খুব বেশি বিশ্বাসী না। অবশ্যই এই ব্যাপারে আমার একটা অবস্থান আছে। তবে আমাদের ‘বিউটিসার্কাস’ সিনেমার গল্পের ব্যাপারে আব্দুল আজিজ খুবই ফ্লেক্সিবল। সেক্ষেত্রে এক জন নায়ক কিংবা অভিনেতা বাইরের হয়ত থাকতে পারে, তবে আমরা চেষ্টা করছি সিনেমার সকল অভিনয় শিল্পীরা যেন বাংলাদেশী হয়।”

২০১৪-১৫ সালের সরকারি অনুদানে নির্মিত হচ্ছে সিনেমাটি। সরকারী অনুদান হিসেবে ‘বিউটিসার্কাস’ সিনেমার জন্য দেয়া হচ্ছে ৩৫ লাখ টাকা। সিনেমাটি পরিচালনা ছাড়াও সিনেমার কাহিনী, চিত্রনাট্য ও সংলাপ লিখেছেন র্নিমাতা নিজেই।






Related News

Comments are Closed