Main Menu

রুবাইয়াতকে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ সম্মাননা প্রদান

বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের ৪৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে গেল ১৮ এপ্রিল ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিট্যুশন মিলনায়তনে ‘সম্পদ সম্পত্তিতে সমান অধিকার নারীর ক্ষমতায়ন ও স্থায়িত্বশীল উন্নয়নের পূর্বশর্ত’ শীর্ষক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠিত ২৮ নারীকে সম্মাননা প্রদান করা হয়।

চলচ্চিত্রে অবদান রাখার জন্য এই সম্মাননা পেলেন রুবাইয়াত হোসেন। এই নির্মাতা তার সর্বশেষ ছবি ‘আন্ডার কন্সট্রাকশন’ দেশে ও বিদেশে ব্যাপক প্রশংসিত ও পুরস্কৃত হয়েছে।

সংগঠনের সভাপতি আয়শা খানমের সভাপতিত্বে সম্মাননাপ্রাপ্তদের হাতে ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট তুলে দেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামান। এছাড়াও অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নরওয়ের রাষ্ট্রদূত মিজ মেরেতো লুনডেমো।

দেশের বাইরে থাকায় রুবাইয়াত হোসেন অনুষ্ঠানে অংশ নিতে না পারলেও তিনি তার অভিব্যক্তি প্রকাশ করে জানান, ‘একজন নারী নির্মাতা হিসাবে চলচ্চিত্রে ভূমিকা রাখার জন্য আমাকে সম্মাননা দেয়ায় আমি বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের কাছে আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ দেশের সবচাইতে প্রাচীন ও শীর্ষস্থানীয় নারী অধিকার সংগঠন, এবং ব্যক্তিগতভাবে আমি নিজেও নারী অধিকার বিষয়ে সক্রিয়। তাই তাদের স্বীকৃতি আমার জন্য অতন্ত আনন্দের ও সম্মানের যা একজন নারী নির্মাতা হিসাবে আমার যাত্রাকে অব্যাহত রাখতে অনুপ্রেরণা যোগাবে।’

অন্যদিকে প্যারিসের গিমে মিউজিয়ামে সম্প্রতি ‘আন্ডার কন্সট্রাকশন’র বিশেষ প্রদর্শনীর মাধ্যমে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানানো হয় পরিচালক রুবাইয়াত হোসেন ও ছবির মূখ্য অভিনেত্রী শাহানা গোস্বামীকে। ছবির প্রদর্শনী শেষে দুই ঘন্টাব্যাপী প্রশ্নত্তোর পর্বে অংশ নেন ফ্রান্সের চলচ্চিত্র ও সংস্কৃতি জগতের অনেক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গ।

ফ্রান্সে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম শহিদুল ইসলামও ছবিটি উপভোগ করেন এবং প্রশ্নোত্তর পর্বে তিনি নিজেও দর্শকদের কিছু প্রশ্নের উত্তর দেন।

এদিকে জানা গেছে, রুবাইয়াত হোসেন ইতোমধ্যে তার পরবর্তী চলচ্চিত্রের চিত্রনাট্যের কাজে হাত দিয়েছেন। ছবিটি বাংলাদেশ ও ফ্রান্সের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত হবে বলে জানানো হয় বাংলাদেশের প্রযোজনা সংস্থা খনা টকিজ’র পক্ষ থেকে। এই প্রতিষ্ঠানের ব্যানারেই মুক্তি পাবে রুবাইয়াতের নতুন ছবিটি।






Related News

Comments are Closed