Main Menu

ইউপি ভোট: সহিংসতার মধ্যে ভোট সম্পন্ন, চলছে গণনা

সহিংসতা, অনিয়ম, কেন্দ্রস্থগিত ও কারচুপির অভিযোগের মধ্যে দিয়ে দেশের ৪৭ জেলার ৮৮ উপজেলার ৭০৩ ইউনিয়ন পরিষদের ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। এখন চলছে গণনা।এর আগে সকাল আটটা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। চলে বিকাল চারটা পর্যন্ত। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত নির্বাচনী সহিসংতায় কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়ায়,নরসিংদীর রায়পুরায় ও ঠাকুরগাঁওয়ে তিনজন নিহত হয়েছেন। এছাড়া নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, জামালপুর, চট্টগ্রামসহ অনেক এলাকায় গোলযোগ হয়েছে।

ভোট শুরুর আগেই ব্যালটে সিল মারার ঘটনায় সারাদেশে অন্তত ৮ জন প্রিজাইডিং অফিসার ও সহকারী প্রিজাইডিং অফিসারকে আটক করেছে পুলিশ। ভোটগ্রহণ শুরু প্রথম ৫ ঘণ্টায় ভোট কেন্দ্র দখল, ব্যালটপেপার ছিনতাই, প্রভাব বিস্তারসহ বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে বেশ কয়েকটি জেলার ১০ কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে।প্রতিপক্ষ প্রার্থীদের হুমকি-ধামকি, ভোটারদের কেন্দ্রে যেতে বারণসহ নানা অভিযোগ পেয়েছে নির্বাচন কমিশন। আগের রাতে ভোট কেন্দ্রে প্রভাব বিস্তার নিয়ে অভিযোগ করেছে বিরোধীদলের প্রার্থীরা। তবে নির্বাচন কমিশনার দাবি আগের নির্বাচনগুলোর তুলনায় চতুর্থ ধাপের ইউপি ভোট ভাল হয়েছে।

নির্বাচনী সহিংসতা:
কুমিল্লা:
কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলায় ভোটকেন্দ্রের সামনে এক যুবককে কুপিয়ে খুন করা হয়েছে। নিহত যুবকের নাম তাপসচন্দ্র দাস (২৩)। তবে ওই যুবক আওয়ামী লীগ প্রার্থীর কর্মী কি না তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি। এ সময় আওয়ামী লীগের প্রার্থীসহ ছয়জন আহত হয়েছে।শনিবার ভোট শুরুর পর পর মাধবপুর ইউনিয়নের চানলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রের সামনে এ ঘটনা ঘটে।কেন্দ্র ইনচার্জ এসআই হুমায়ুন কবীর বলেন, কেন্দ্রে আসার পথে ওই যুবকের উপর হামলা হয়। এ সময় আওয়ামী লীগ প্রার্থী ফরিদউদ্দিনসহ ছয় জন আহত হয়েছেন বলে তিনি জানান।

নরসিংদী:
নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার শ্রীনগর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকরা বিদ্রোহী প্রার্থীর এক সমর্থককে কুপিয়ে হত্যা করেছে। শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ইউনিয়ন পরিষদের চতুর্থ ধাপের নির্বাচন চলাকালিন রায়পুরা উপজেলার শ্রীনগর রংপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষের সময় এ ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে টেঁটাবিদ্ধ হয়ে আহত হয়েছেন আরো ৫ জন। তাদের জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।রায়পুরা থানা পুলিশ জানায়, জাল ভোট দেয়াকে কেন্দ্র করে শ্রীনগর রংপুর কেন্দ্রে আওয়ামীলীগ প্রার্থী রিয়াজ মোর্শেদ খান রাসেল ও আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী আযান চৌধুরীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এসময় আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থীর সমর্থকরা বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থক সুমন হোসেন নামে এক যুবককে কিরিস দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মক আহত করে। এছাড়া এসময় উভয় পক্ষের অন্তত ৫ জন টেঁটাবিদ্ধ হন।আহতদের সবাইকে নরসিংদী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সুমনের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় সেখান থেকে সুমনকে ঢাকায় পাঠানো হলে পথেই তার মৃত্যু হয়।নিহত সুমন বিদ্রোহী প্রার্থী আযান চৌধুরীর ভাগিনা।পুলিশ জানায়, এসময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে বেশ কয়েক রাউন্ড গুলি বর্ষণ করেন তারা। এদিকে বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থক নিহত হওয়ার ঘটনায় ওই ইউনিয়নে চরম উত্তেজনা দেখা দিয়েছে।

মাদারীপুর:
মাদারীপুর জেলার কালকিনিতে কেন্দ্রে ঢুকে জোর করে নৌকা প্রতীকে ছিল মারার সময় বাধা দেওয়ায় পুলিশ সদস্যসহ ৫ জনকে আহত করা হয়েছে।শনিবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার কয়ারিয়া ইউনিয়নের ১ নম্বর কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।বড়চর কয়ারিয়া বোর্ড সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রিজাইডিং কর্মকর্তা জানান, শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ চলছিল। হঠাৎ করে এ কেন্দ্রে নৌকা সমর্থকরা হামলা চালিয়ে ব্যালট পেপারে সিল মারতে থাকেন। এ সময় কর্তব্যরত পুলিশ কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) আমির হোসেন তাদের বাধা দিলে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে তাকে আঘাত করা হয়। এ ছাড়া তাদের হামলায় আহত হয়েছেন অন্তত চারজন। খবর পেয়ে র্যাব-পুলিশ ঘটনাস্থলে আসলে নৌকা প্রতীকের সিল মারা বেশকিছু ব্যালট পেপার উদ্ধার করা হয়। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

ময়মনসিংহ:
ময়মনসিংহের ফুলবাড়ীয়ার ভবানীপুর ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী আব্দুস সালামের সমর্থকরা কেন্দ্র দখলের চেষ্টা চালায়। এসময় পুলিশ ২ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুঁড়ে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। শনিবার দুপুর ১২টায় ওই ইউনিয়নের বড়বিলা ফাজিল মাদ্রাসা ভোটকেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। এতে প্রায় ৪৫ মিনিট ভোটগ্রহণ স্থগিত থাকে।স্থানীয়রা জানান, আওয়ামীলীগের ৫০-৬০ জন সমর্থক কেন্দ্র দখল করতে হুড়মোড় করে ঢুকে এজেন্টদের মারধর করে বের করে দেয়। এসময় তারা ব্যালট পেপার ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

লক্ষ্মীপুর:
লক্ষ্মীপুরে মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে পৃথক ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষে আহত হয়েছেন অন্তত ৩৫ জন। (আজ) শনিবার সকাল ১০টা থেকে ১১টার মধ্যে জাল ভোট দেয়া ও ভোটারদের প্রভাবিত করাকে কেন্দ্র করে লক্ষ্মীপুর সদরের টুমচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ও রায়পুরের বামনী ইউনিয়নের আল আমিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে পৃথকভাবে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ দিকে রায়পুর উপজেলার কেরোয়া মানছুরা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে জাল ভোট দেয়াকে কেন্দ্র করে ভোট গ্রহণ স্থগিত করেছে সংশ্লিষ্ট রিটার্ণিং অফিসার। এ সময় জাল ভোট দেয়ার দায়ে ওই কেন্দ্র থেকে ৬ পোলিং এজেন্টকে আটক করা হয়েছে বলে জানান দায়িত্বরত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ শামীম হোসেন।আহতদের সদর হাসপাতালসহ প্রাথমিকভাবে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এদিকে টুমচরের ওই কেন্দ্র থেকে রিয়াজুল করিম নামে নৌকা প্রতীকের এক এজেন্টকে আটক করেছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, টুমচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে জাল ভোট দেয়া ও ভোটারদের প্রভাবিত করায় মেম্বার প্রার্থী ইসমাইল হোসেন (মোরগ প্রতীক) ও কামাল হোসেন (ফুটবল প্রতীক) এর সমর্থকদের মধ্যে বাকবিতন্ডার একপর্যায়ে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে উভয়পক্ষের ৩০ জন আহত হন। এ দিকে রায়পুরের বামনী ইউনিয়নের আল আমিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে দুই মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে ৫ জন আহত হন।

গোপালগঞ্জ:
গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার জলিরপাড় ইউনিয়নে টেবিলের ওপর ভোট নেওয়ায় বাধা দেওয়ায় চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী মিহির কান্তি রায়কে পিটিয়ে আহত করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। শনিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ওই ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সেন্ট পিটার্স সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের সামনে এ ঘটনা ঘটে। আহত ওই প্রার্থীকে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। চেয়ারম্যান প্রার্থী মিহির কান্তি রায় বলেন, “ওই কেন্দ্রে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী প্রভাব খাটিয়ে টেবিলের ওপর ভোট নিচ্ছেন- এমন সংবাদ পেয়ে আমি ওই কেন্দ্রে গিয়ে ঘটনার সত্যতা পাই এবং প্রতিবাদ করি। এতে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর লোকজন আমাকে মারপিট করে।” সেন্ট পিটার্স সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা অলিয়ার রহমান বলেন, “কেন্দ্রের মধ্যে কোনো ঘটনা ঘটেনি। বাইরে কিছু ঘটে থাকলে আমার জানা নেই।”






Related News

Comments are Closed