Main Menu

রাজশাহীতে পীরকে গলা কেটে হত্যা

তানোর উপজেলায় মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ নামের ষাট বছরের এক বৃদ্ধকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। তিনি তরিকতপন্থি পীর ছিলেন বলে জানা যায়।

এই ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে নিহতের ছেলে রাসেল আহম্মেদ বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। এতে অজ্ঞাতনামাদের আসামি করা হয়েছে।

এদিকে, নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য দুপুর ১২টার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। তবে এই ঘটনায় কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ।

নিহতের ছেলে থানায় গিয়ে বাবার মরদেহ শনাক্ত করার পর মোহাম্মদ শহীদুল্লাহর পরিচয় পায় পুলিশ। তার গ্রামের বাড়ি রাজশাহীর পবা উপজেলার নওহাটা পৌরসভার মহানন্দখালী গ্রামে।

তিনি রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ উপজেলার পীর ইমাম মেহেদী ওয়াকফ স্টেট তরিকার অনুসারী ছিলেন। গতকাল শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে তিনি বাড়ি থেকে বের হন।

নিহতের ছেলে রাসেল আহম্মেদ জানান, বাড়ি থেকে বের হওয়ার সময় তিনি পার্শ্ববর্তী চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার গোমস্তাপুর উপজেলার রহনপুর গোলাবাড়ী গ্রামে অন্য এক মুরিদের বাড়িতে যাচ্ছেন বলে জানান। কিন্তু এর পর থেকে তার আর খোঁজ পাচ্ছিলেন না পরিবারের লোকজন।

পরে স্থানীয়দের তথ্যের ভিত্তিতে শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজশাহীর তানোর উপজেলার বাঁধাইড় ইউনিয়নের জুমারপাড়ায় আবুল হাসানের আম বাগান থেকে তার গলা কাটা মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

ওই সময় নিহত শহীদুল্লাহর মরদেহের পাশ থেকে উদ্ধার হওয়া ব্যাগে ব্যাংকের রশিদ ও হোল্ডিং ট্যাক্সের কাগজ দেখে তার নাম সম্পর্কে নিশ্চিত হয় পুলিশ। তবে তার ঠিকানা পাওয়া যায়নি।






Related News

Comments are Closed