Main Menu

ইফতারে তৈরি করুন ভিন্নস্বাদের শরবত

ইফতারে আমরা প্রথম যা পান করে নিজেদের রোজা ভাঙ্গি তা হল, শরবত।

রমজান মাসে প্রতিদিনই নানান ধরনের শরবত তৈরি করতে হয়। কিন্তু প্রতিদিন তো এর একই ধরনের শরবত মুখরোচক হয়ে উঠে না।

তাই চাই একটু ভিন্ন ধরনের শরবত। বাজারে রসালো ফল দিয়ে ভিন্নভাবে শবরত আপনার ইফতার টেবিলে রাখতে পারেন। এছাড়া অন্যান্য ফলেও শবরতও সবাইকে পরিবশেন করাতে পারেন।

আনারসের শরবত:
উপকরণ: আনারস ১টি, চিনি, বিট লবণ, পুদিনা পাতা।
প্রণালী: পরিস্কার পানি দিয়ে আনারস ধুয়ে খোসা ছাড়িয়ে ছোট ছোট পিস করে নিন। এরপর আনারসের টুকরাগুলো ব্লেন্ডারে দিয়ে তাতে পানি, চিনি, বিট লবণ, পুদিনা পাতা মিশিয়ে ব্লেন্ড করুণ। এরপর শরবত ছেকে ফ্রিজে রেখে ঠাণ্ডা করে পান করুন।

আপেল ও লেবুর মিক্সড শরবত
উপকরণ: আপেল ২০০ গ্রাম, লেবু ১টা, চিনি ও লবণ পরিমাণমত, পানি ও বরফ কুচি।
প্রণালী: আপেল ছোট ছোট টুকরা করে ব্লেন্ড করে নিন। এরপর তাতে লেবুর রস ও বরফকুচি দিয়ে পরিবেশন করুন।

কামরাঙ্গার শরবত
উপকরণ: কামরাঙ্গা ৪ থেকে ৫টি, কাঁচামরিচ ১টি, চিনি ও লবণ পরিমাণমত, পুদিনা পাতা, বরফ কুচি।
প্রণালী: কামরাঙ্গা কেটে বিচি ফেলে দিতে হবে। এরপর কামরাঙ্গা ও কাঁচামরিচ ব্লেন্ড করে তাতে পরিমাণমত লবণ ও চিনি মিশিয়ে ফ্রিজে রেখে দিন। ঠাণ্ডা হলে পুদিনাপাতা মিশিয়ে খেলে দারুণ লাগবে।

কাঁঠালের ঠাণ্ডাই
উপকরণ: কাঁঠাল বিচি ছাড়া ১ কাপ, দুধ ২ টেবিল চামচ, টকদই ২ টেবিল চামচ, চিনি যদি লাগে ২ টেবিল চামচ, চকলেট বার গ্রেট করা ২ চা চামচ, পানি ২ গ্লাস, বরফ টুকরো ৪টি।
প্রণালী: চকলেট ও বরফ ছাড়া বাকি সব উপকরণ এক সাথে ব্লেন্ড করুন। ব্লেন্ড হয়ে গেলে গ্লাস ঢালুন। এবার উপরে বরফ টুকরো ও গ্রেট চকলেট দিয়ে পরিবেশন করুন।

আম-দই শরবত
উপকরণ: পাকা আম ৪টা, টক দই আধ লিটার, কাঁচা মরিচ ৮-১০টা, গোল মরিচ গুঁড়ো -১ টেবিল চামচ, বিট লবণ পরিমাণ মতো, ১টি লেবুর খোসা কুচি, অর্ধেকটি লেবুর রস, ক্রিম ১ কৌটা বা ১৭০ গ্রাম, চিনি প্রয়োজন মতো।
প্রণালী: আমের টুকরোগুলো ব্লেন্ডারে নিয়ে চিনি, লেবুর খোসা, গোল মরিচ গুঁড়ো, বিট লবণসহ ব্লেন্ড করে নিন। এরপর একটি বাটিতে দই এবং ক্রিম নিয়ে ভালো করে ফেটে নিন যতক্ষণ পর্যন্ত ঘন না হয়।






Related News

Comments are Closed