Main Menu

কলেজে ভর্তি: ১২ লাখ শিক্ষার্থীর সাড়ে ৪২ লাখ আবেদন

লতি শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদনের দিন আজ বৃহস্পতিবার শেষ হচ্ছে। বুধবার রাত ১১টা পর্যন্ত ১২ লাখ ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী আবেদন করেছে। আবেদনের মোট সংখ্যা সাড়ে ৪২ লাখ।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক ড. আশফাকুস সালেহীন বলেন, ‘শেষ দিনে আবেদনের চাপ বেশি। সকাল থেকে এখন পর্যন্ত কতটা আবেদন করা হয়েছে, তা পরিমান করা হয়নি। তবে অন্যান্য দিনের তুলনায় অনেক বেশি আবেদন পড়ছে আজ।

তিনি জানান, গড় হিসেবে দেখা যায় একজন ভর্তিচ্ছু তিন থেকে চারটি কলেজ পছন্দ করেছেন। আর মেধাবী শিক্ষার্থীদের বেশিরভাগেরই পছন্দের কলেজ একই।

আন্তঃশিক্ষা বোর্ডের কর্মকর্তারা জানান, এখন শিক্ষার্থীরা যদি তাদের পছন্দের কলেজের সংখ্যা না বাড়ান তাহলে এবারও জটিলতার সৃষ্টি হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। তাই শেষ দিনে অন্তত ১০টি কলেজ পছন্দের কোটা শেষ করতে অনুরোধ করেছে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড কর্তৃপক্ষ।

জানা যায়, সারা দেশে প্রায় সাড়ে চার হাজার কলেজ রয়েছে। আর এতে আসন সংখ্যা রয়েছে প্রায় ১৯ লাখ। তবে এবার এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় পাস করেছে ১৪ লাখ ৫২ হাজার ৬০৫ জন। চলতি বছরে উত্তীর্ণদের সঙ্গে ২০১৪ ও ২০১৫ সালের পাস করা শিক্ষার্থীদেরও আবেদনের সুযোগ থাকছে।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ড কর্তৃপক্ষ আশা করছেন, যারা ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন করেছেন তারা এখনও তাদের কলেজ পছন্দ শেষ করেননি। আজ তারা তাদের ১০টি কলেজ পছন্দ শেষ করবেন। সেক্ষেত্রে আজ আবেদন সংখ্যা অনেক বেড়ে যাবে। এছাড়া সব শিক্ষার্থীই তাদের ফলাফল অনুসারে ভালো কলেজের সঙ্গে একটা মাঝারি মানের কলেজও পছন্দের তালিকায় রাখছেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির ক্ষেত্রে অনলাইনে ও এসএমএসে আবেদন শুরু হয় ২৬ মে। একজন শিক্ষার্থীর জন্য অনলাইনে ১০টি কলেজ ও এসএমএসে ১০টি কলেজ পছন্দের সুযোগ রাখা হয়। একটি কলেজ পছন্দকেই একটি আবেদন হিসেবে গণ্য করা হয়। শিক্ষার্থীদের অধিক সংখ্যক কলেজ পছন্দের সুযোগ রাখা হলেও তারা তা করছেন না।

অথচ এবার শিক্ষার্থীরা যেসব কলেজে আবেদন করেছেন প্রতিটিতেই তাদের মেধা তালিকা করা হবে। অর্থাৎ একটি কলেজে এক হাজার আসন থাকলে ওই কলেজে যদি ১০ হাজার আবেদন পড়ে তাহলে মেধা অনুসারে প্রথমে এক হাজার জনকে নির্বাচিত করা হবে।

আর বাকি নয় হাজারকে মেধা অনুসারে অপেক্ষামান তালিকায় রাখা হবে। নির্বাচিতদের মধ্য থেকে কেউ ভর্তি না হলে ওই শূন্যস্থানে অপেক্ষামান তালিকা থেকে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে।






Related News

Comments are Closed