Main Menu

সার কারখানার ট্যাংকে ছিদ্র, অ্যামোনিয়ামে অসুস্থ ৫০

চট্টগ্রামের আনোয়ারার রাঙাদিয়ায় ডাই অ্যামোনিয়াম ফসফেট (ডিএপি) সার কারখানার একটি কনটেইনার ছিদ্র হয়ে গ্যাস ছড়িয়ে পড়েছে। গতকাল রাত সাড়ে ১১টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অন্তত ৫০ জনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

কর্ণফুলীর পাড়ে আনোয়ারা উপজেলায় ড্যাপ-১ কারখানাটি চিটাগাং ইউরিয়া ফার্টিলাইজার কোম্পানি লিমিটেড (সিইউএফএল) এর সীমানায় অবস্থিত। এ গ্যাস নদীর এপারে বন্দর ও হালিশহর এলাকায়ও ছড়িয়ে পড়েছে।

ফায়ার সার্ভিসের এক কর্মকর্তা জানান, গ্যাসের কারণে পতেঙ্গায় শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের বেশ কয়েকজন যাত্রী অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাদের মধ্যে পাঁচজনকে চিকিৎসার জন্য রাত একটার দিকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

নগরের হালিশহর এলাকার বাসিন্দা সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘গ্যাসের গন্ধের কারণে ঘরে টেকা যাচ্ছে না’। শ্বাস নিতে সমস্যা হচ্ছে।

অ্যামোনিয়াম ফসফেট বাতাসের সঙ্গে মিশে অ্যামোনিয়া গ্যাস তৈরি করে বলে জানান চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ফলিত ও পরিবেশ রসায়ন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সুমন গাঙ্গুলী। তিনি বলেন, গ্যাসের ঘনমাত্রার ওপর নির্ভর করে এর ক্ষতিকর প্রভাব। তবে এই গ্যাসের প্রভাবে চোখ জ্বালাপোড়া ও শ্বাস নিতে কষ্ট হয়।

দুর্ঘটনার পর চট্টগ্রাম শহর থেকে ফায়ার সার্ভিসের চারটি ইউনিট ঘটনাস্থলে যায়। রাত দেড়টার দিকে ফায়ার সার্ভিসের চট্টগ্রাম কার্যালয়ের উপসহকারী পরিচালক জসীম উদ্দিন বলেন, আটটি গাড়ি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে। সেখানে কৃত্রিম বৃষ্টি ছিটানো হচ্ছে।

এর আগে রাত একটায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অসুস্থ ব্যক্তিদের দেখতে যান জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন ও সিভিল সার্জন আজিজুর রহমান সিদ্দিকী।






Related News

Comments are Closed