Main Menu

আবার খুলে দেয়া হলো চীনের কাচের সেতু

বিশ্বের সবচেয়ে বৃহত্তম কাচের সেতুটি পুণরায় চালু করা হয়েছে। হুনান প্রদেশে নির্মিত সবচেয়ে উঁচু এবং বৃহত্তম কাচের সেতুটি আবারো পরিদর্শন করতে পারবে দর্শনার্থীরা। খবর প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়ার।

সেতুটি এমনভাবে নির্মাণ করা হয়েছে যে, একবারে ১০ হাজার মানুষ ওই সেতুতে উঠলেও এর কোনো ক্ষতি হবে না। এ বছরের আগস্টে পরীক্ষামূলক হিসেবে সেতুটি চালু করা হয়। কিন্তু চালু হওয়ার মাত্র ১৩ দিনের মাথায় সেতুুটি বন্ধ করে দেয়া হয়।

স্থানীয় সিলি কাউন্টির ম্যাজিসট্রেট গাও জিংশেং বলেছেন, নিরাপত্তাজনিত কারণে সেতুটি বন্ধ করা হয়েছে এমন গুজব উঠেছিল। এটা সত্যি নয়। এর নিরাপত্তার বিষয়টি আগে থেকেই স্পষ্ট ছিল।

রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম পিপলস ডেইলিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, সেতু পরিদর্শনে যারা আসেন তাদের প্রতি আমাদের দায়িত্ব রয়েছে। আমরা মনে করেছি সেতুর চারপাশ এবং এর পরিবেশ আরো উন্নত করা দরকার। পরীক্ষামূলকভাবে সেতুটি চালু করার সময় যে ধরনের সমস্যাগুলো আমাদের চোখে পড়েছে সেগুলো পুরোপুরি কাটিয়ে উঠতেই সেতুটি বন্ধ রাখা হয়েছিল।

এর আগে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছিল, জরুরি রক্ষণাবেক্ষণের জন্য সাময়িক সময়ের জন্য বন্ধ রাখা হয়েছে সেতুটি। খুব শিগগিরই এটি আবার জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করা হবে।

হুনান প্রদেশে ঝাংজিয়াজে ন্যাশনাল পার্কের দুটি পাহাড়ের চূড়ার সঙ্গে মেলবন্ধ তৈরি করেছে এই সেতুটি। ৪৩০ মিটার দৈর্ঘ্যের এই সেতুটি নির্মাণে খরচ পড়েছে ৩ দশমিক ৪ মিলিয়ন ডলার। মাটি থেকে ৩শ’ মিটার ওপরে সেতুটির অবস্থান।

তিন স্তরের স্বচ্ছ কাঁচ দিয়ে তৈরি করা হয়েছে এই সেতুটি। এতে ৯৯টি পেন ব্যবহার করা হয়েছে। ৬ মিটার প্রশস্ত এই সেতুটির স্থপতি হায়েম ডোতান। সেতুটিতে প্রতিদিন সর্বোচ্চ ৮ হাজার মানুষকে ওঠার অনুমতি দেওয়া হয়।






Related News

Comments are Closed