Main Menu

গাজীপুরের আগুন নিয়ন্ত্রণে, তদন্ত কমিটি গঠন

সোয়া ছয় ঘণ্টা পর গাজীপুরের সফিপুরে যমুনা স্পিনিং মিলস কারখানার আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। রোববার বেলা ১১টা ২৫ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গাজীপুর ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক আক্তারুজ্জামান।

এদিকে, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় পৃথক দুটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। রোববার গাজীপুর জেলা প্রশাসন এবং ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে এ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

গাজীপুর জেলা প্রশাসক এসএম আলমের নির্দেশে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট রাহেনুল ইসলামকে প্রধান করে ৫ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। আগামী ১০ কার্য দিবসের মধ্যে এই কমিটিকে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

অন্যদিকে, ফায়ার সার্ভিসের উপ-পরিচালক (অপারেশন) জহুরুল আমিন মিয়াকে প্রধান করে ৫ সদস্যের আরেকটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। এই কমিটিকে আগামী ১৫ কার্য দিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

উভয় কমিটিকে যমুনা স্পিনিং কারখানায় আগুনের কারণ, ক্ষয়ক্ষতি নিরুপণ এবং কেন বারবার শিল্প এলাকায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটছে তা জানাতে বলা হয়েছে।

এর আগে রোববার সোয়া পাঁচটার দিকে কারখানার ডেনিম রিসাইক্লিনিং প্লান্ট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের ১৪টি ইউনিট কাজ করে

কারখানার ফায়ার অ্যান্ড সিকিউরিটি বিভাগের সাধারণ ব্যবস্থাপক মো. হরমুজ আলী জানান, সকালে যমুনা স্পিনিং কারখানার একতলা টিনসেড ভবনের ডেনিম রিসাইক্লিনিং প্লান্ট থেকে হঠাৎ আগুনের সূত্রপাত হয়। মুহূর্তের মধ্যে আগুন ফিনিশিং, নিটিং, তুলা ও সুতার গুদামে ছড়িয়ে পড়ে।

শুরুতে কারখানার নিজস্ব ফাইটিং ব্যবস্থায় আগুন নেভানোর চেষ্টা করা হয় এবং ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয়া হয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের সদর দফতর, গাজীপুরের কালিয়াকৈর, জয়দেবপুর, শ্রীপুর, সাভারের ইপিজেড, মিরপুর, ধামরাই ও টাঙ্গাইলের মির্জাপুর ফায়ার সার্ভিসের ১৪টি ইউনিটের কর্মীরা আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করে। আগুনে কারখানার টিনসেডের স্ট্রাকচার ধসে পড়েছে।

তিনি আরো জানান, কারখানার ভেতর বিপুল পরিমাণ ফিনিশিং গুড, সুতা তৈরির কাঁচামাল, কেমিকেল, সুতা, তুলা, আমদানি করা সুতা তৈরির পলিস্টার ও মেশিনপত্র রয়েছে।

আগুন লাগার খবর পেয়ে কালিয়াকৈর পৌরসভার মেয়র মো. মুজিবুর রহমান, শিল্প পুলিশের পুলিশ সুপার সোয়েব আহমেদ, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান, শিল্প পুলিশের ওসি মো. শহীদুল্লাহ, কালিয়াকৈর থানার ওসি আ. মোতালেব মিয়া, স্থানীয় কাউন্সিলর আহাদ আলী, শাহনাজ আক্তার সাহেরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।






Related News

Comments are Closed