Main Menu

ঝিনাইদহে দুর্বৃত্ত কর্তৃক মধ্যরাতে যুবককে কুপিয়ে হত্যা !

জাহিদুর রহমান তারিক ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ
জমিজমা ও সামাজিক বিরোধের জের ধরে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ইস্তেগাপুর গ্রামের মোহন আলী মুন্সি (২৮) নামে এক ব্যক্তিকে হত্যা করা হয়েছে। তিনি একই গ্রামের হাফিজুর রহমান মুন্সির ছেলে।

শুক্রবার মধ্যরাতে এ ঘটনা ঘটে।

ঝিনাইদহের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আজবাহার আলী শেখ জানান, ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ইস্তেগাপুর গ্রামে জমিজমা নিয়ে জনৈক হাসানুজ্জামান তিতুর সঙ্গে ফিরোজ আহমেদ ফেদু নামে এক ব্যক্তির বিরোধ চলছিল। বিষয়টি আদালতেও গড়ায়।

দুই মাস আগে তিতুর সমর্থকরা ফিরোজ আহম্মেদ ফেদুকেও কুপিয়ে ও পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠায়। তার জের ধরেই ফেদু সমর্থকরা আবারো ফেদু সমর্থক মোহন মুন্সির উপর হামলা চালায়। তিনি আরো জানান, রাত ১১টার দিকে ইস্তেগাপুর বাজার থেকে বাড়ি ফিরছিলেন মোহন মুন্সি, মুসলিম বিশ্বাস ও অন্য একজন।

এ সময় রাস্তার পাশে ওৎ পেতে থাকা তিতু সমর্থকরা ফেদু সমর্থকদের উপর হামলা চালায়। তারা ধারাল অস্ত্র দিয়ে তাদেরকে কুপিয়ে পালিয়ে যায়। আহত তিনজনকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে ঝিনাইদহ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ মাসুদউজ্জামান রুমন মোহন আলী মুন্সিকে মৃত ঘোষণা করেন।

চিকিৎসক জানান, রক্তক্ষরণ জনিত কারনে অনেক আগেই মোহনের মত্যু হয়েছে। তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। হামলায় আহত মুসলিম বিশ্বাস ও অন্যজনকে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

এ ঘটনায় হামলায় মদদ দেওয়ার অভিযোগে পুলিশ হাসানুজ্জামান তিতুকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। গ্রামে উত্তেজনা বিরাজ করছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

তিনি জানান, রক্তক্ষরণ জনিত কারণে অনেক আগেই তার মৃত্যু হয়েছে। ঝিনাইদহ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হরেন্দ্রনাথ সরকার জানান, সামজিক বিরোধের জের ধরে এ ঘটনাটি ঘটতে পারে। এ ব্যাপারে থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন। এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। আসামি ধরার চেষ্টা চলছে।






Related News

Comments are Closed