Main Menu

আসছে ঈদে ফিরছেন শাবনূর

ঢাকাই চলচ্চিত্রের এক সময়ের দাপুটে নায়িকা শাবনূর। ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নায়কদের বিপরীতে টানা অভিনয় করে দর্শকের মণিকোঠায় অল্প সময়ে জায়গা করে নেন তিনি। এখনও দর্শকের নিকট শাবনূর একই রকম জনপ্রিয়। তার অভিনীত বেশিরভাগ ছবিই ছিল হিট, সুপারহিট। এখন আর চলচ্চিত্রে তেমন কাজ করছেন না তিনি। বেশ কয়েক মাস ধরেই ‘থাইরয়েড’ রোগে ভুগছেন চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী।

তাই নিয়মিত চেকআপ ও ডাক্তারের পরামর্শ নিতে অস্ট্রেলিয়ায় থাকতে হচ্ছে তাকে। সবশেষ চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে তিনি ঢাকায় এসেছিলেন। তবে এসে নতুন কোনো কাজে হাত দেননি। কারণ আসার কয়েকদিন পরই আবার অস্ট্রেলিয়ায় পাড়ি জমান। গতকাল শাবনূরের মা আমেনা বেগম বলেন, আমার সঙ্গে প্রায় প্রতিদিনই শাবনূরের কথা হচ্ছে। আগের চেয়ে বেশ ভালো আছে শাবনূর। তার ‘থাইরয়েড’ রোগের চিকিৎসার জন্যই মূলত অস্ট্রেলিয়ায় থাকতে হচ্ছে।

সবশেষ গত বছরের নভেম্বরে শাবনূরের কাছে গিয়েছিলাম আমি। সেই সময় দেখেছি এক বা দুই মাস পর পর ডাক্তার শাবনূরের ব্লাড টেস্ট করেন। সেজন্যই মূলত ঢাকায় আসতে চাইলেও হঠাৎ করে আসতে পারেন না শাবনূর। তবে রোজার মধ্যে এসে এখানে ঈদ করবে বলে জানিয়েছে শাবনূর। আশা করি, আমার মেয়েটা দ্রুত সুস্থ হয়ে দেশে ফিরবে। ঢাকার প্রেক্ষাগৃহে শাবনূর অভিনীত সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত ছবিটি হচ্ছে মোস্তাফিজুর রহমান মানিক পরিচালিত ‘কিছু আশা কিছু ভালোবাসা’।

সেটাও প্রায় পাঁচ বছর আগের কথা। প্রয়াত সালমান শাহ, মান্না থেকে শুরু করে শাকিব খান, রিয়াজ, ফেরদৌসসহ অনেক জনপ্রিয় নায়কের সঙ্গে বড় পর্দায় কাজ করেছেন তিনি। অনেকদিন ধরেই নতুন ছবিতে কাজ করছেন না তিনি। সবশেষ গত বছর শাবনূর দু ধাপে অস্ট্রেলিয়া থেকে দেশে ফিরে ফেরার পর ‘ইউরো স্টার’ নামে একটি কোম্পানির চুলার বিজ্ঞাপনচিত্রে মডেল হিসেবে কাজ করেন।

এছাড়া গত বছর মোস্তাফিজুর রহমান মানিক তার ‘এত প্রেম এত মায়া’ ছবিতে শাবনূরকে চুক্তিবদ্ধ করেছিলেন। তবে শাবনূর এ ছবির শুটিংয়ে এখনো অংশ নেননি। শিগগিরই সুস্থ হয়ে দেশে ফিরে নতুন কাজে ফিরবেন তিনি এমন প্রত্যাশা চলচ্চিত্রসংশ্লিষ্ট সকলের।






Related News

Comments are Closed