ঝিনাইদহে নবগঙ্গা নদী কালী মুর্তী উদ্ধার


আপডেট: ৯:৪২:০০, ০২ মে ২০১৯, বৃহঃ বার
ঝিনাইদহে নবগঙ্গা নদী কালী মুর্তী উদ্ধার

জাহিদুর রহমান তারিক,ঝিনাইদহঃ
ঝিনাইদহ শহরের চাকলা পাড়া এলাকার নবগঙ্গা নদী থেকে স্বপ্নে পাওয়া কালী মুর্তী উদ্ধার হয়েছে। বুধবার (১লা মে) ঝিনাইদহ শহরের চাকলা পাড়া এলাকার নবগঙ্গা নদী থেকে স্বপ্নে পাওয়া কালী মুর্তী উদ্ধার হয়েছে। জানা গেছে, ঝিনাইদহ শহরের চাকলা পাড়া এলাকার বাবু জোয়ারদারের আম বাগান সংলগ্ন নবগঙ্গা নদী থেকে স্বপ্নে পাওয়া কালী মুর্তী উদ্ধার করেছে এক বৃদ্ধা, তার নাম কল্যানী বিশ্বাস (৭০)। কল্যানী বিশ্বাস ও এলাকাবাসী সুত্রে যানা যায়, চাকলা পাড়ার মৃত. ধীরেন গোপাল বিশ্বাসের স্ত্রী কল্যানী বিশ্বাস গত ১০/১২ দিন ধরে গভীর রাতে স্বপ্নে দেখেন ঐ কালী মুর্তী তাকে বলছেন “আমি নবগঙ্গা নদীর সিড়িতলা ঘাটে আছি, আমাকে তুলে নিয়ে যাও” গভীর রাতে স্বপ্নে একথা শোনার পর কল্যনী বিশ্বাস ভয়ে কারো কাছে কিছু বলেনা। এক পর্যায়ে বুধবার সকালে কল্যানী বিশ্বাস তার নাতি ছেলে সোহাগ (২২)কে নিয়ে চাকলাপাড়ার নবগঙ্গা নদীর সিড়ি ঘাট এলাকায় তার মেজে মেয়ে অলকা, বৌমা মমতা ও তার ছেলে হিরোনকে নিয়ে কালী মুর্তীটি খুঁজতে থাকে। খুঁজতে খুঁজতে কল্যানী বিশ্বাস তার স্বপ্নে দেখা কালী মুর্তীটি পেয়ে যায়। পরে তার বড় ছেলে চাকরাপাড়ার মিলনের বাসায় কালী মুর্তীটি রাখা হয়েছে। এ সময় চাকালা পাড়ার শত শত উৎসুক জনগন এই মহা মুল্যবান পাথরের মুর্তীটি দেখতে মিলনের বাড়িতে ভিড় জমায়। এ ব্যপারে ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি মিজানুর রহমান খান সাংবাদিকদের জানান, আমি লোকমুখে ঘটনাটা শুনেছি, একটু পরে চাকলাপাড়ায় গিয়ে খোঁজখবর নিয়ে ব্যাবস্থা নেব। এ ঘটনায় এরাকাবাসীদের মধ্যে মোবাইল ব্যাবসায়ী মিন্টু কুমার বিশ্বাস বলেন, এটি মহা মুল্যবান পাথরের কালী মুর্তী হতে পারে। উল্লেখ্য, কল্যানী বিশ্বাস শহরের চুয়াডাঙ্গা বাসস্ট্যান্ড এলাকার কেয়ার হাসপাতালে আয়ার চাকরি করেন।

Go to top